লেখালেখি করে আয় করার সেরা ৫টি ওয়েবসাইট

লেখালেখি

লেখালেখি করে আয় করার সেরা ৫টি ওয়েবসাইট

শিক্ষাজীবন থেকে লেখালেখির করা অত্যন্ত সৃজনশীল একটি চর্চা। হোক সেটা যেকোনো টপিক নিয়ে। একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি যদি লেখার দক্ষতাটাও তৈরি করে নেয়া যায়, তাহলে সেটা একসময় আপনার ক্যারিয়ারেও রূপ নিতে পারে। সাথে ফ্রিল্যান্সিং এর কথা চিন্তা করলে লেখালেখি বিষয়ক কাজের তো কোন অভাবই নেই। 

লেখালেখি এক প্রকার স্বাধীন পেশা। এখানে আপনি কাজ করতে পারবেন নিজের পছন্দের বিষয়বস্তু নিয়ে, ভাবতে পারবেন নিজের জগত নিয়ে। আর এই লেখালেখির পাশাপাশি এর থেকে যদি সামান্য কিছু আয়ও হয়, তাহলে ক্ষতি কি? 

আজকে আমরা আলোচনা করবো এমন কিছু ওয়েবসাইট নিয়ে যেখান থেকে আপনি খুব সহজেই বিভিন্ন একাডেমিক লেখালেখির কাজ পেতে পারেন। 

 

রাইটিং ক্লিক 

একাডেমিক লেখালেখিতে যাদের হাতেখড়ি প্রয়োজন, তাদের জন্য এই ওয়েবসাইটটি বেশ কার্যকর। এতে সহজ ও বিনামূল্যে লেখক নিয়োগ দেওয়া হয়। এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টা সময় লাগে। একবার লেখক অ্যাকাউন্টটি অনুমোদন পেয়ে যাবার পর লেখার কাজ শুরু করা যায় এবং তা থেকে উপার্জনও সম্ভব। 

শুরুর দিকে প্রতি পৃষ্ঠার জন্য ৪ ডলার এবং অভিজ্ঞদের জন্য ১২ ডলার উপার্জনের সুযোগ আছে। এতে লেখালেখিতে পারদর্শিতা অনুযায়ী বিষয় বাছাই করা যায় এবং খণ্ডকালীন বা পূর্ণকালীন–উভয় পদ্ধতিতেই লেখা যায়। নিজের গতির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে কাজ বাছাইয়ের সুযোগ আছে এখানে। 

এ ছাড়া যেকোনো সমস্যা নিয়ে লাইভ চ্যাটে এর সাপোর্ট টিমের সাহায্য পাওয়া যায়। সম্পাদক ও ক্লায়েন্ট– উভয় পক্ষ থেকে লেখকের কাছে কিছু ফিডব্যাক দেবার ব্যবস্থাও আছে, যার মাধ্যমে দক্ষতা বৃদ্ধি করা যাবে। পেয়োনিয়ার এবং পেপ্যালের মাধ্যমে সাধারণত মাসে দুই বার লেখকদের সম্মানী দেওয়া হয়। 

 

এসে শার্ক

একটি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হবার মাধ্যমে এই ওয়েবসাইটে এক সপ্তাহের মধ্যে কাজ পাওয়া সম্ভব। লেখালেখিতে দক্ষতা আছে এমন কলেজ শিক্ষার্থীর জন্য এই ওয়েবসাইটটির মাধ্যমে হাতখরচ, এমনকি পড়ালেখার খরচ চালানোর মতো উপার্জন করা সম্ভব। 

নিজের পছন্দের বিষয়ের উপর কাজ করার সুযোগ আছে এখানে। কাজের খুঁটিনাটি নিয়ে ক্লায়েন্টের সঙ্গে সরাসরি কথা বলা যাবে। মাসে দুই বার সম্মানী দেওয়ার পাশাপাশি ক্লায়েন্টের ফিডব্যাকের উপর ভিত্তি করে এসে শার্ক বিভিন্ন বোনাসও দিয়ে থাকে। এজন্য প্রয়োজন হবে সময়মতো ভালো মানের কাজ জমা দেওয়া।

 

রাইটারস ডট পিএইচ

শীর্ষ একাডেমিক ওয়েবসাইটগুলো পেশাদার লেখক ও গবেষকদের সঙ্গে কাজ করে থাকে। লেখকের আবেদন অনুমোদনের জন্য ওয়েবসাইটটি ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টা সময় নেউ এবং অনুমোদন পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কাজ শুরু করা সম্ভব। বিশ্বব্যাপী নেটওয়ার্ক থাকায় যথেষ্ট কাজ পাওয়া যায়। কোনো সমস্যার মুখোমুখি হলে ২৪ ঘণ্টা সহায়তা পাওয়ার ব্যবস্থাও আছে। 

এছাড়াও এই ওয়েবসাইটে কাজের উপর ভিত্তি করে পদোন্নতির সুযোগ আছে, এতে সম্মানীও বাড়ে। একাডেমিক লেখালেখি ছাড়াও এখানে প্রুফরিডিং, সম্পাদনা, উপস্থাপনার মতো কাজও পাওয়া যায়।

 

ল্যান্সার হপ

ল্যান্সার হপে কাজ করার বিভিন্ন ক্ষেত্র রয়েছে। এতে একাডেমিক লেখকের পাশাপাশি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, সম্পাদনা বিশেষজ্ঞ, ওয়েব কনটেন্ট লেখক, কপিরাইটার এবং ব্লগারদের নিয়োগ দেওয়া হয়। অন্যান্য একাডেমিক ওয়েবসাইটের মতোই এর নিয়োগ প্রক্রিয়া। প্রথমে প্রোফাইল তৈরি করতে হয়, এরপর পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হবার মাধ্যমে কাজ শুরু করা যায়। 

এই ওয়েবসাইটে একটি ড্যাশবোর্ডের ব্যবস্থা আছে, যার মাধ্যমে লেখককে কাজ দেওয়া হয়। পেমেন্ট, কাজ সম্পন্ন হবার তথ্য এবং সম্পাদনার বিষয়গুলো এখানে সাজানো থাকে। ভিন্ন টাইম জোনের জন্য আলাদা করে শিথিলযোগ্য সময়সীমা বেছে নেওয়ার সুযোগও আছে এই ওয়েবসাইটে। 

 

অ্যাকাডেমিয়া রিসার্চ

একাডেমিক লেখালেখি করে এই ওয়েবসাইটে ভালো উপার্জনের সুযোগ আছে। নিবন্ধন প্রক্রিয়ার জন্য একটি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হয় আবেদনকারীদের। অ্যাকাউন্ট অনুমোদন পাবার পর ‘সাধারণ’ স্তরে কাজ শুরু করা যায়, যেখানে প্রতি পৃষ্ঠা লেখার জন্য ৩ ডলার সম্মানী দেওয়া হয়। 

এগুলো সবই হাইস্কুল ও কলেজ স্তরের লেখা। ধাপে ধাপে এগোনোর মাধ্যমে লেখক তার পদোন্নয়ন করতে পারেন। লেখার মানও বাড়বার সঙ্গে সঙ্গে সম্মানীও বৃদ্ধি পাবে। এই ওয়েবসাইটে বিষয়ভিত্তিক লেখার বৈচিত্র্য আছে। এখানেও প্রতি মাসে দুই বার সম্মানী দেওয়া হয়।

Join our student community

View Us